HSC জীবন ও বৃক্ষ গল্পের (mcq) বহুনির্বাচনি প্রশ্নের উত্তর

একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির বাংলা ১ম পত্র গাইড
এইচএসসি পরীক্ষার পূর্ণাঙ্গ প্রস্তুতি
HSC Bangla 1st Paper Jibon O Brikkho MCQ Question and Answer pdf download

জীবন ও বৃক্ষ
মোতাহের হোসেন চৌধুরী

বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর
সুপ্রিয় শিক্ষার্থীগণ! ভালবাসা নিও। বহুনির্বাচনি প্রশ্নপদ্ধতি মুখস্থনির্ভর নয়, পাঠ্যবইনির্ভর মৌলিক বিদ্যা। তাই অনুশীলন অংশ শুরু করার পূর্বে গল্পটির শিখন ফল, পাঠ পরিচিতি, লেখক পরিচিতি, উৎস পরিচিতি, বস্তুসংক্ষেপ, নামকরণ, শব্দার্থ ও টীকা ও বানান সতর্কতা সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানা একান্ত আবশ্যক।

⚛ অনুশীলন অংশে যা যা থাকছে (Practice)
✑ অনুশীলনীর প্রশ্ন ও উত্তর
✑ বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর
✑ অনুশীলনীর বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর
✑ মাস্টার ট্রেইনার কর্তৃক যাচাইকৃত বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর
ক. সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর
খ. বহুপদী সমাপ্তিসূচক প্রশ্ন ও উত্তর
গ. অভিন্ন তথ্যভিত্তিক প্রশ্ন ও উত্তর

⚛ পাঠ সহায়ক অংশ (Supplement)
বহুনির্বাচনি পদ্ধতি মুখস্থনির্ভর বিদ্যা নয়, পাঠ্যবইনির্ভর মৌলিক বিদ্যা। তাই অনুশীলন অংশ শুরু করার আগে গল্প/কবিতার শিখন ফল, পাঠ পরিচিতি, লেখক পরিচিতি, উৎস পরিচিতি, বস্তুসংক্ষেপ, নামকরণ, শব্দার্থ ও টীকা ও বানান সতর্কতা সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাবলি উপস্থাপন করা হয়েছে। এসব বিষয়গুলো জেনে নিলে এ অধ্যায়ের যেকোনো বহুনির্বাচনি প্রশ্নের উত্তর দেয়া সম্ভব হবে।

⚛ শিখন ফল
▶ বৃক্ষের দিকে তাকিয়ে মানজীবনের তাৎপর্য সহজে উপলব্ধি করতে পারবে।
▶ কর্মচক্ষুকে বড় না করে কল্পনা ও অনুভূতির চক্ষুকে বড় করে তোলার সুফল সম্পর্কে জানতে পারবে।
▶ বৃক্ষের গোপন ও নীরব সাধনা এবং তা থেকে মানুষের অর্জিত শিক্ষা জীবনে গ্রহণ ও প্রয়োগে সচেষ্ট হবে।
▶ সমাজের কাজ সম্পর্কে অবগত হবে।
▶ সংসারে বসবাসকারী মানুষের শ্রেণিভেদ সম্পর্কে জ্ঞান হবে।
▶ স্বল্পপ্রাণ, স্থূলবুদ্ধি ও জবরদস্তিপ্রিয় মানুষের প্রকৃতি সম্পর্কে জানতে পারবে।
▶ সূক্ষ বুদ্ধি, উদার হৃদয়, গভীরচিত্ত ব্যক্তির প্রকৃতি সম্পর্কে জ্ঞাত হবে।
▶ বৃক্ষের জীবনের গতি ও বিকাশকে উপলদ্ধি করতে শিখবে।
▶ নদীর সাথে মনুষ্যত্বের সাদৃশ্য সম্পর্কে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের অভিব্যক্তি জানতে পারবে।
▶ সুখ-দুঃখ বেদনার উপলব্ধিজাত ফল, আত্মার পরিপক্বতা ও তা পুষ্ট করার গুরুত্ব সম্পর্কে ধারণা লাভ করবে।
▶ শিক্ষার প্রকারভেদ এবং মানুষের সার্বিক বিকাশে সাহিত্য-শিল্পকলার গুরুত্ব সম্পর্কে অবগত হতে পারবে।
▶ বৃক্ষের সাথে মানুষের জীবনের সাদৃশ্য সম্পর্কে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাথে লেখকের দ্বিমত সম্পর্কে অবগত হতে পারবে।
▶ মানুষের দৈহিক বৃদ্ধির সাথে তার আত্মিক বৃদ্ধির গুরুত্ব সম্পর্কে জ্ঞাত হবে।

⚛ পাঠ-পরিচিতি
মোতাহের হোসেন চৌধুরীর ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধটি তাঁর ‘সংস্কৃতি কথা’ গ্রন্থ থেকে সংকলিত হয়েছে।
পরার্থে আত্মনিবেদিত সুকৃতিময় সার্থক বিবেকবোধসম্পন্ন মানবজীবনের মহত্তম প্রত্যাশা থেকে লেখক মানুষের জীবনকাঠামোকে তুলনা করেছেন বৃক্ষের সঙ্গে। তিনি দেখিয়েছেন, বৃক্ষের বিকাশ, পরিপূর্ণতা ও সার্থকতার পেছনে রয়েছে তার নীরব সাধনা। বৃক্ষ যেমন করে ফুলে ফলে পরিপূর্ণতা পায়, আর সে সব অন্যকে দান করে সার্থকতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে ওঠে, মানব-জীবনের সার্থকতার জন্য তার নিজের সাধনাও তেমনি হওয়া উচিত। তাহলেই স্বার্থপর, অহংকারী, বিবেকহীন, নিষ্ঠুর জবরদস্তিপ্রবণ মানুষের জায়গায় দেখা দেবে প্রেমে, সৌন্দর্যে, সেবায় বিকশিত বিবেকবান পরিপূর্ণ ও সার্থক মানুষ।

⚛ লেখক পরিচিতি
নাম : মোতাহের হোসেন চৌধুরী
জন্ম সাল  : ১৯০৩ খ্রিষ্টাব্দ
জন্মস্থান  : কুমিল্লা। পৈতৃক নিবাস : নোয়াখালি জেলার কাঞ্চনপুর গ্রাম।
মাধ্যমিক  : ম্যাট্রিক, ইউসুফ হাইস্কুল, কুমিল্লা।
উচ্চ মাধ্যমিক  : আইএ, ভিক্টোরিয়া কলেজ।
উচ্চতর শিক্ষা  : বিএ, ভিক্টোরিয়া কলেজ; এমএ (বাংলা ১৯৪৩ খ্রিষ্টাব্দ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।
পেশা ও কর্মজীবন : সহকারী শিক্ষক- ইউসুফ হাইস্কুল, কুমিল্লা; প্রভাষক- ইসলামিয়া কলেজ, কলকাতা; অধ্যাপক-বাংলা বিভাগ, চট্টগ্রাম কলেজ; অন্যতম পুরোধা ব্যক্তিত্ব- ঢাকার মুসলিম সাহিত্য সমাজের (১৯২৬) মুক্তবুদ্ধি চর্চা আন্দোলন।
সাহিত্য কর্ম : ‘প্রবন্ধ গ্রন্থ  : সংস্কৃতি কথা।
অনুবাদ গ্রন্থ  : ‘সভ্যতা’ (ক্লাইভ বেলের সিভিলাইজেশনের অনুবাদ); ‘সুখ’ (বার্ট্রান্ড রাসেলের Conquest of Happiness-এর civilization-এর অনুবাদ।)
মৃত্যু তারিখ  : ১৮ সেপ্টম্বর, ১৯৫৬ খ্রিষ্টাব্দ।

⚛ উৎস পরিচিতি
মোতাহের হোসেন চৌধুরীর ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধটি তাঁর ‘সংস্কৃতি কথা’ গ্রন্থ থেকে সংকলিত হয়েছে।

⚛ বস্তুসংক্ষেপ
‘বুদ্ধির মুক্তি’ আন্দোলনের অন্যতম কাণ্ডারি মোতাহের হোসেন চৌধুরী একাধারে সৌন্দর্যবোধ, যুক্তিবাদী চেতনা ও মানবপ্রেমের এক আদর্শ অনুসারী। মননশীল গদ্য রচনায় তাঁর অবদান সবচেয়ে বেশি। ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধটি তাঁর প্রথম গ্রন্থ ‘সংস্কৃতি কথা’ থেকে সংকলিত হয়েছে। লেখক মানবজীবনকে বৃক্ষের সাথে তুলনা করেছেন। লেখক এখানে দেখিয়েছেন যে, বৃক্ষের বিকাশ, পরিপূর্ণতা ও সার্থকতার পেছনে রয়েছে তার নীরব সাধনা। কেননা, বৃক্ষ ফুলে-ফলে পরিপূর্ণতা পায় এবং সে সব অন্যকে দান করে সার্থকতায় উজ্জ্বল হয়ে ওঠে। পক্ষান্তরে, মানবজীবন সম্পূর্ণভাবে এর ব্যতিক্রম। কেননা, মানুষের বৃদ্ধি কেবল দৈহিক নয়- আত্মিকও। আত্মিক বৃদ্ধির জন্য মানুষকে বিচিত্র অভিজ্ঞতা, প্রচুর অসম, গভীর অনুভূতি ও সাহিত্য-শিল্প-বিজ্ঞানের চর্চা ও সাধনা করতে হয়। তারপর তার সাফল্য মানব সমাজের কল্যাণের মাধ্যমে সার্থকতা লাভ করে। সুতরাং মানবজীবনের সার্থকতার জন্য তার নিজের সাধনাও হওয়া উচিত বৃক্ষের মতো। তাহলেই স্বার্থপর, অহংকারী ও বিবেকহীন মানুষের পরিবর্তে পাওয়া যাবে প্রেমে, সৌন্দর্যে, সেবায় পরিপূর্ণ এক বিবেকবান ও সার্থক মানুষ। তাছাড়া সমাজের কাজে কেবল স্থায়িত্বের বা টিকে থাকার সুবিধা দেয়া নয়, এর প্রকৃত কাজ হলো মানুষকে বিকশিত ও বড় করে তোলা। এজন্য সমাজকে বৃক্ষের জীবনের গতি ও বিকাশকে উপলব্ধি করা দরকার। অন্যথায় সার্থকতা বা পরিপূর্ণতা অর্জন করা দুরূহ হয়ে পড়বে। নীরব ভাষায় বৃক্ষ আমাদের সার্থকতার গান শোনায়। এসব বিবেচনায় ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধে মানবজীবনের সাথে বৃক্ষের তুলনা অত্যন্ত যুক্তিযুক্ত ও অর্থবহ হয়েছে।

⚛ নামকরণ
‘নামকরণের গুরুত্বের দিক বিবেচনায় ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধেটির নামকরণ করা হয়েছে বিষয়বস্তুর ওপর ভিত্তি করে। জীবন বলতে জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত মানুষের আয়ুষ্কালকে বোঝায়। এখানে মানুষের জীবন বলতে কার্বন ডাই-অক্সাইড ত্যাগ করে অক্সিজেন গ্রহণ করাকে বুঝানো হয়েছে। বৃক্ষ বলতে চলাফেরায় অক্ষম প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষাকারী উদ্ভিদকে বোঝায়। যে নিজে নিজের খাদ্য তৈরি করে এবং মানুষকে ফুল, ফল, ছায়া এবং জীবন রক্ষাকারী অক্সিজেন দিয়ে সাহায্য করে। মানুষের জীবনে বৃক্ষের অবদানের তুলনামূলক বিশ্লেষণ করেছেন।

স্বল্পপ্রাণ, স্থুলবুদ্ধি ও জবরদস্তিপ্রিয় মানুষের ব্যক্তিগত, পারিবারিক ও জাতিগত অহংকারে সংসার পরিপূর্ণ। অথচ বৃক্ষের কোনো অহংকার নেই, গর্ব নেই। কেবল গোপন ও নীরব ভাষায় সে নিজেকে উৎসর্গ করে। বৃক্ষেরও বৃদ্ধি আছে, বিকাশ আছে, কার্যসাধনের প্রণালি আছে, ফুলে-ফলে পরিপূর্ণ হয়ে অন্যের সেবায় নিজেকে দান করার প্রকৃতির অমোঘ নিয়মের সাধনা আছে। বৃক্ষের বর্ণময় ফুল ফোটানো ও পুষ্টিকর ফল ধরানোর মধ্যে তার অনবরত নতি, শান্তি ও সেবার বাণী ফুটে ওঠে। বৃক্ষে গ্রহণ ও দান দুটোই আছে। জীবন ধ্বংসকারী কার্বন ডাই-অক্সাইড গ্রহণ ও জীবনদানকারী অক্সিজেন দান বৃক্ষের কাজ। সৃজনশীল মানুষেরও প্রাপ্তি ও দানে পার্থক্য দেখা যায় না। প্রকৃতির যে ধর্ম মানুষেরও সে ধর্ম। তবে বৃক্ষের বৃদ্ধির উপর তার নিজের কোনো হাত নেই। অথচ মানুষের সুখ-দুঃখ, আনন্দ- বেদনা উপলব্ধির ফলে অন্তরের যে পরিপক্বতা মানুষ অর্জন করে, তা-ই তার আত্মা। আত্মার পরিপুষ্টি ও মাধুর্য সম্পাদনের জন্য বিচিত্র অভিজ্ঞতা, প্রচুর প্রেম ও গভীর অনুভূতি দরকার।

তাহলেই তা জীবনবোধ ও মূল্যবোধ পরিপূর্ণ হয়ে শিল্পকলার অঙ্গীভূত হতে পারে। বৃক্ষের অঙ্কুরিত হওয়া থেকে ফলবান হওয়া পর্যন্ত কেবল বৃদ্ধি ও সেবার ইতিহাস, যা তার সার্থকতার ইঙ্গিত। শান্তি ও সহিষ্ণুতায় বৃক্ষ অনন্য। মানবজীবনের সার্থকতার জন্য তার নিজের সাধনাও বৃক্ষের মতোই হওয়া উচিত। তা হলেই প্রেমে, সৌন্দর্যে, সেবায় বিকশিত বিবেকবান পরিপূর্ণ ও সার্থক মানুষ হয়ে গড়ে ওঠা সম্ভব। মানুষের জীবনের সাথে বৃক্ষের এ যোগসূত্রের দিক থেকে ‘জীবন ও বৃক্ষ’ নামকরণ সার্থক।

⚛ শব্দার্থ ও টীকা
স্থূলবুদ্ধি = সূক্ষ বিচারবুদ্ধিহীন, অগভীর জ্ঞানসম্পন্ন।
জবরদস্তিপ্রিয় = গায়ের জোরে কাজ হাসিলে তৎপর, বিচার-বিবেচনাহীন।
বিকৃতবুদ্ধি = বুদ্ধির বিকার ঘটেছে এমন, যথাযথ চিন্তাচেতনাহীন।
এদের প্রধান দেবতা অহংকার = যথাযথ বিচার-বিবেচনা ও চিন্তাচেতনাহীন লোকেরা এত গর্বোদ্ধত হয়ে থাকে যে, মনে হয় যেন অহংকারই তাদের প্রধান উপাস্য বা দেবতা।
বুলি = এখানে গৎ-বাঁধা কথা হিসেবে ব্যবহৃত, যথাযথ অর্থ বহন করে না এমন কথা যা অভ্যাসের বশে বলা হয়ে থাকে।
জীবনাদর্শ = জীবনে অনুকরণের উপযুক্ত মহৎ ও শ্রেষ্ঠ দিকগুলো।
মনুষ্যত্ব = মানবোচিত সদ্গুণাবলি, মানুষের বিশেষ গুণ বা বৈশিষ্ট্য।
তবোপন-প্রেমিক রবীন্দ্রনাথ = প্রাচীন ভারতীয় ঋষিদের মতো রবীন্দ্রনাথও ছিলেন অরণ্য ও বৃক্ষপ্রেমিক। তাঁর অনেক কবিতায় বৃক্ষের বন্দনা স্পষ্ট।
তপোবন = অরণ্যে ঋষির আশ্রম, মুনি ঋষিরা তপস্যা করেন এমন বন।
চর্মচক্ষু = দৈহিক চক্ষু [মানসিক বা দিব্যদৃষ্টির বিপরীত]।
অনুভূতির চক্ষু = মনের চোখ, ইন্দ্রিয়ের সাহায্যে অনুভূতির বা উপলব্ধির ক্ষমতা, সংবেদনশীলতা।
নতি = অবনত ভাব, বিনয়, নম্রতা।
সাধনা = সাফল্য বা সিদ্ধি অর্জনের জন্য নিরন্তর প্রচেষ্টা।
বৃক্ষের প্রাপ্তি ও দান = বৃক্ষের অর্জন হচ্ছে তার ফুল ও ফল। এগুলো সে অন্যের হাতে তুলে দেয়। ফলে বৃক্ষ যুগপৎ প্রাপ্তি ও দানের আদর্শ।
সৃজনশীল = নির্মাণ সৃষ্টিতে তৎপর।
সৃষ্টিধর্ম = সৃষ্টি বা সৃজনের বৈশিষ্ট্য।
আত্মিক = মনোজাগতিক, চিন্তা-চেতনার ক্ষেত্র।
পরিপক্বতা = সুপরিণতিজাত, পরিপূর্ণ বিকাশসাধন।
বস্তুজিজ্ঞাসা = বস্তুজগতের রহস্য উন্মোচন-অন্বেষা। বস্তুজগৎ সম্পর্কে জানার আগ্রহ।
গূঢ় অর্থ = প্রচ্ছন্ন গভীর তাৎপর্য।

⚛ বানান সতর্কতা
স্বল্পপ্রাণ, সূক্ষবুদ্ধি, জবরদস্তিপ্রিয়, মনুষ্যত্ব, উপলব্ধিহীন, স্থূলবুদ্ধি, আন্তরিকতা শূন্য, ধীরস্থির, আত্মবিসর্জন, অঙ্কুরিত, বস্তুজিজ্ঞাসা, সহিষ্ণুতা, পরিপক্ব, পরিপক্বতা, আত্মিক, গূঢ় অর্থ, চর্মচক্ষু।

HSC Bangla 1st Paper Guide.
Jibon O Brikkho Golper MCQ Question and Answer pdf download
জীবন ও বৃক্ষ
বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর

⚛ অনুশীলনীর বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর
১. মোতাহের হোসেন চৌধুরী কাকে মনুষ্যত্বের প্রতীক করতে চেয়েছেন?
[ক] নদীকে
☑️ বৃক্ষকে
[গ] ধর্মকে
[ঘ] আত্মাকে

২. ‘প্রকৃতির যে ধর্ম মানুষের সে ধর্ম’-উক্তিটি দ্বারা কী বোঝানো হয়েছে?
☑️ পরোপকারিতা
[খ] সহনশীলতা
[গ] উদারতা
[ঘ] সংবেদনশীলতা

উদ্দীপকটি পড়ে ৩ ও ৪ নং প্রশ্নের উত্তর দাও।
তমাল মেধাবী। দেশের স্বনামধন্য মেডিকেল কলেজ থেকে ডাক্তারি পাস করে ফিরে যান নিজ গ্রামে। প্রতিষ্ঠা করেন ধাতব্য চিকিৎসালয়। শহরে প্রাকটিস করে অনেক টাকা রোজগারের পরিবর্তে নিজ গ্রামের সাধারণ মানুষের সেবাকে তিনি ব্রত হিসেবে গ্রহণ করলেন।

৩. উদ্দীপকের তমালের সাথে “জীবন ও বৃক্ষ” প্রবন্ধের কার সাদৃশ্য আছে?
[ক] বৃক্ষের
[খ] জীবনের
☑️ লেখকের
[ঘ] নদীর

৪. উদ্দীপকের ভাবার্থ নিচের কোন বাক্যে প্রকাশ পেয়েছে?
[ক] বৃদ্ধি কেবল দৈহিক নয়, আত্মিকও।
[খ] বৃক্ষ যে কেবল বৃদ্ধির ইশারা তা নয়, প্রশান্তিরও ইঙ্গিত।
[গ] যা তার প্রাপ্তি তাই তার দান।
☑️ নীরব ভাষায় বৃক্ষ আমাদের সার্থকতার গান শোনায়।

মাস্টার ট্রেইনার কর্তৃক যাচাইকৃত বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর
সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর
লেখক পরিচিতি: (বোর্ড বই থেকে)

৫. মোতাহের হোসেন চৌধুরী কোথায় জন্মগ্রহণ করেছেন?
☑️ কাঞ্চনপুরে
[খ] ভাগলপুরে
[গ] চাঁদপুরে
[ঘ] হরিপুরে

৬. মোতাহের হোসেন চৌধুরী কত সালে জন্মগ্রহণ করেছেন?
[ক] ১৯০১
[খ] ১৯০২
☑️ ১৯০৩
[ঘ] ১৯০৪

৭. সাহিত্য অঙ্গনে ও বাস্তবজীবনে মোতাহের হোসেন চৌধুরীর মধ্যে কোন বিষয়টি প্রতিফলিত হয়েছে?
☑️ মুক্তবুদ্ধির চেতনা
[খ] বিদ্রোহী ভাব
[গ] প্রতিবাদী চেতনা
[ঘ] দার্শনিক অভাব

৮. ‘সংস্কৃতির কথা’ গ্রন্থটির রচয়িতা কে?
☑️ মোতাহের হোসেন চৌধুরী
[খ] কাজী আবদুল ওদুদ
[গ] আবুল হুসেন
[ঘ] আবদুল কাদির

৯. মোতাহের হোসেন চৌধুরী কর্তৃক ক্লাইভ বেল-এর 'Civilization' গ্রন্থ অবলম্বনে রচিত প্রন্থের নাম কী?
☑️ সভ্যতা
[খ] সুখ
[গ] বনি আদম
[ঘ] নেকড়ে আরণ্য

১০. বারট্রান্ড রাসেলের 'Conquest of Happiness' গ্রন্থের অনুবাদিত গ্রন্থ কোনটি?
[ক] সভ্যতা
[খ] সংস্কৃতি কথা
☑️ সুখ
[ঘ] স্বাধীনতা

১১. মোতাহের হোসেন চৌধুরী কোন কলেজের অধ্যাপক ছিলেন?
[ক] ঢাকা কলেজ
[খ] বরিশাল কলেজ
☑️ চট্টগ্রাম কলেজ
[ঘ] বাঙলা কলেজ

১২. মোতাহের হোসেন চৌধুরী কোন ধরনের গদ্য রচয়িতা হিসেবে খ্যাত?
☑️ মননশীল
[খ] রম্যরচয়িতা
[গ] বিজ্ঞানভিত্তিক
[ঘ] ইসলামি

১৩. মোতাহের হোসেন চৌধুরী কত তারিখে মুত্যুবরণ করেন?
[ক] ১৬ই সেপ্টেম্বর
[খ] ১৭ই সেপেম্বর
☑️ ১৮ই সেপ্টেম্বর
[ঘ] ১৯ শে সেপ্টেম্বর

১৪. কেমন মানুষে সংসার পরিপূর্ণ?
☑️ স্বল্পপ্রাণ
[খ] মহাপ্রাণ
[গ] ধর্মপ্রাণ
[ঘ] মননশীল

১৫. কীসের দিকে তাকালে জীবনের তাৎপর্য উপলব্ধি করা সহজ হয়?
[ক] আকাশের
[খ] ফুলের
☑️ বৃক্ষের
[ঘ] মাটির

১৬. বৃক্ষের কোন ছবি প্রত্যহ চোখে পড়ে?
☑️ ফুল ফোটানো, ফল ধরানোর
[খ] সৌন্দর্যের ছবি
[গ] ধ্বংসের ছবি
[ঘ] ছায়াদানের ছবি

১৭. কোন কবিকে তপোবন প্রেমিক বলা হয়েছে?
[ক] বঙ্কিমচন্দ্রকে
☑️ রবীন্দ্রনাথকে
[গ] জসীমউদ্দীনকে
[ঘ] শামসুর রাহমানকে

১৮. কে নদীর গতির মধ্যে মানুষের সাদৃশ্য দেখতে পেয়েছেন?
[ক] নজরুল ইসলাম
[খ] জীবনানন্দ দাশ
☑️ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
[ঘ] মোতাহের হোসেন

১৯. সৃজনশীল মানুষের মাঝে কীসে পার্থক্য দেখা যায় না?
[ক] ভালোবাসায়
[খ] স্বভাবে
☑️ প্রাপ্তি ও দানে
[ঘ] সৃষ্টিতে

২০. বৃক্ষের নীরব ভাষার গান কীভাবে শোনা যায়?
☑️ অনুভূতির কান দিয়ে
[খ] বৃক্ষের কাছে গিয়ে
[গ] গাছকে ভালোবেসে
[ঘ] যন্ত্রের মাধ্যমে

জীবন ও বৃক্ষ গল্পের বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণি
২১. কী ব্যাপারে প্রাপ্তি একটা বড় জিনিস?
[ক] ভালোবাসার
☑️ সাধনার
[গ] ত্যাগের
[ঘ] ভোগের

২২. কীসের পানে তাকিয়ে রবীন্দ্রনাথ সৃষ্টিকর্ম উপলব্ধি করেছেন?
[ক] নদীর
[খ] আকাশের
☑️ বৃক্ষের
[ঘ] মানুষের

২৩. কাকে মধুর ও পুষ্ট করে গড়ে তুলতে হবে?
[ক] মানুষকে
[খ] মনুষ্যত্বকে
☑️ বৃক্ষকে
[ঘ] সন্তানকে

২৪. কাকে তার আত্মা সৃষ্টি করে নিতে হয়?
☑️ মানুষকে
[খ] বৃক্ষকে
[গ] পশুপাখিকে
[ঘ] সন্তানকে

মূল পাঠ: (বোর্ড বই থেকে)

২৫. কার কাজ কেবল টিকে থাকার সুবিধা দেওয়া নয়?
[ক] ব্যক্তির
[খ] পরিবারের
[গ] গোষ্ঠীর
☑️ সমাজের

২৬. মানুষকে বড় করে তোলা কার কাজ?
[ক] মা-বাবার
[খ] পরিবারের
☑️ সমাজের
[ঘ] রাষ্ট্রের

২৭. কেমন জীবনের জন্য মানুষের জীবনে আগ্রহ জাগিয়ে দেওয়া দরকার?
[ক] মানবজীবন
☑️ বিকশিত জীবন
[গ] উন্নত জীবন
[ঘ] শিক্ষিত জীবন

২৮. নিজের জীবনকে সার্থক ও সুন্দর করে তোলা কোন মানুষের কাজ নয়?
[ক] মহৎপ্রাণ
☑️ স্থূলবুদ্ধি
[গ] উন্নতপ্রাণ
[ঘ] জীবাত্মানির্ভর

২৯. অপরের সার্থকতার পথে অন্তরায় সৃষ্টি করা কার কাজ?
[ক] দস্যুপ্রবৃত্তির মানুষের
[খ] দাঙ্গাবাজ মানুষের
☑️ জবরদস্তিপ্রিয় মানুষের
[ঘ] আগ্রাসী চরিত্রের মানুষের

৩০. “এরা নিষ্ঠুর ও বিকৃতবুদ্ধি” কেন?
[ক] উচ্চতর শিক্ষায় শিক্ষিত হয়নি বলে
[খ] ধর্মের পবিত্র আলোয় সিক্ত নয় বলে
[গ] মহৎপ্রাণের সংস্পর্শ লাভ করেনি বলে
☑️ প্রেম ও সৌন্দর্যের স্পর্শ লাভ করেনি বলে

৩১. নিষ্ঠুর ও বিকৃতবুদ্ধির মানুষদের দেবতা কে?
☑️ অহংকার
[খ] রাবণ
[গ] শয়তান
[ঘ] জুপিটার

৩২. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধে ‘নিশান’ শব্দটি কী অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে?
[ক] চি‎হ্ন
☑️ পতাকা
[গ] লক্ষ্য
[ঘ] পরিচয়

৩৩. নিষ্ঠুর ও বিকৃতবুদ্ধির মানুষের প্রেমের কথায় কী হয় না?
[ক] উদ্দীপনা
[খ] প্রভাব বিস্তার
☑️ নেশা ধরা
[ঘ] উৎসাহ

৩৪. স্বল্পপ্রাণ, স্থুলবুদ্ধি ও জবরদস্তিপ্রিয় মানুষের স্থানে কেমন মানুষ আনতে হবে?
[ক] শিক্ষিত
[খ] শ্রমজীবী
[গ] বুদ্ধিজীবী
☑️ বড় মানুষ

৩৫. বড় মানুষের কাছে জীবনের কী বড় হয়ে ওঠে?
☑️ বিকাশ
[খ] পরিণতি
[গ] প্রবৃদ্ধি
[ঘ] উন্নতি

৩৬. বড় মানুষের কাছে জীবনাদর্শের প্রতীক কী?
[ক] মানবিকতা
[খ] বিজ্ঞানমনস্কতা
☑️ সজীব বৃক্ষ
[ঘ] প্রবহমান নদী

৩৭. বৃক্ষের কাজ কী?
[ক] ফুল ফোটানো
[খ] ফল দেওয়া
[গ] ছায়া প্রদান
☑️ অপরের সেবার জন্য প্রস্তুত হওয়া

৩৮. কার জীবনের গতি ও বিকাশকে উপলব্ধি করা দরকার?
☑️ বৃক্ষের
[খ] মানবের
[গ] নদীর
[ঘ] প্রাণীর

৩৯. বৃক্ষের দিকে তাকালে জীবনের কী সহজ হয়?
[ক] সৌন্দর্য উপলব্ধি
☑️ তাৎপর্য উপলব্ধি
[গ] বিকাশ অনুধাবন
[ঘ] লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য অনুধাবন

৪০. বার বার কোন দিকে তাকানো প্রয়োজন?
[ক] উন্নত জীবনের প্রতি
[খ] সৌন্দর্যের প্রতি
☑️ বৃক্ষের প্রতি
[ঘ] ফুল ও ফলের প্রতি

৪১. জীবনের সার্থকতার প্রতীক কোনটি?
[ক] নদী
[খ] ফুল
[গ] ফল
☑️ বৃক্ষ

৪২. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধের লেখকের বক্তব্যের সাথে কে দ্বিমত পোষণ করেছেন?
☑️ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
[খ] কাজী আবদুল ওদুদ
[গ] আবুল হোসেন
[ঘ] আবুল ফজল

৪৩. ফুল ফোটাকে রবীন্দ্রনাথ কার সঙ্গে তুলনা করেছেন?
[ক] বৃক্ষের
☑️ নদীর গতির
[গ] বন-বনানীর
[ঘ] পাহাড়-ঝরনার

৪৪. রবীন্দ্রনাথ কীসের মধ্যে মনুষ্যত্বের সাদৃশ্য দেখতে পেয়েছেন?
[ক] গাছের
[খ] ফুলের
☑️ নদীর গতির
[ঘ] প্রকৃতির সৌন্দর্যের

৪৫. “মনুষ্যত্বের বেদনা নদীর গতিতেই উপলব্ধ হয়, ফুলের ফোটায় নয়।”-এটি কার মত?
[ক] কাজী মোতাহার হোসেনের
[খ] মোতাহের হোসেন চৌধুরীর
[গ] মাইকেল মধুসূদনের
☑️ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের

৪৬. ফুলের ফোটা কেমন?
[ক] নৈসর্গিক
[খ] শৈল্পিক
☑️ সহজ
[ঘ] জটিল

৪৭. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধের লেখকের মতে কোন দিকে তাকালে রবীন্দ্রনাথ ভালো করতেন?
☑️ বৃক্ষের ফুল ফোটানোর দিকে
[খ] জীবনের বিকাশের দিকে
[গ] নদীর গতিপ্রবাহের পানে
[ঘ] ফল-ফলাদির দিকে

৪৮. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধের লেখক রবীন্দ্রনাথকে কী হিসেবে অভিহিত করেছেন?
[ক] কবিসম্রাট
☑️ তপোবন-প্রেমিক
[গ] বৃক্ষের বেদনা
[ঘ] জীবনের বিকাশ

৪৯. অনুভূতির চক্ষুকে বড় করে তুললে কী সহজে উপলব্ধি করা যায়?
[ক] ফুল ফোটার দৃশ্য
[খ] ফুল ফোটার বেদনা
☑️ বৃক্ষের বেদনা
[ঘ] জীবনের বিকাশ

৫০. বৃক্ষের সাধনায় কী দেখতে পাওয়া যায়?
[ক] বৃক্ষের চাওয়া
[খ] বৃক্ষের বিকাশ
[গ] বৃক্ষের সৌন্দর্য
☑️ বৃক্ষের ধীরস্থির ভাব

৫১. কী মানুষের সাধনা হওয়া উচিত নয়?
☑️ অনবরত ধেয়ে চলা
[খ] শুধু নিজে বাঁচা
[গ] আদর্শহীন বেঁচে থাকা
[ঘ] শ্রীহীন জীবনের বিকাশ

৫২. ‘যাকে বলা হয় গোপন ও নীরব সাধনা তা বৃক্ষেই অভিব্যক্ত,-এ নয়।’
[ক] ফুলে
☑️ নদীতে
[গ] ফলে
[ঘ] বৃক্ষে

৫৩. কার সার্থকতার ছবি তত সহজে উপলব্ধি করা যায় না?
[ক] ফলের
[খ] ফুলের
[গ] বৃক্ষের
☑️ নদীর

৫৪. নদী কোথায় পতিত হয়?
[ক] নদীতে
[খ] হ্রদে
☑️ সাগরে
[ঘ] মহাসাগরে

৫৫. কার ছবি আমরা প্রত্যহ দেখতে পাই না?
[ক] ফুল ফোটার
☑️ নদীর সাগরে পতিত হওয়ার
[গ] জীবন বিকশিত হওয়ার
[ঘ] বৃক্ষের বেদনার

৫৬. দোরের কাছে দাঁড়িয়ে বৃক্ষ কীসের বাণী প্রচার করে?
☑️ নতি, শান্তি ও সেবার
[খ] সাম্য, মৈত্রী ও স্বাধীনতার
[গ] একতা, শৃঙ্খলা ও সাধনার
[ঘ] সাধনা, ত্যাগ ও পরিপূর্ণতার

৫৭. নদীর সাগরে পতিত হওয়ায় প্রাপ্তি স্পষ্ট হয়ে ওঠে না কেন?
[ক] প্রত্যহ দেখা যায় না বলে
[খ] গোপন ও নীরব সাধনা অভিব্যক্ত নয় বলে
☑️ নদীর সেটি আত্মবিসর্জন বলে
[ঘ] নদীর মতো ধেয়ে চলা মানুষের সাধনা হওয়া উচিত নয় বলে

৫৮. বৃক্ষের প্রাপ্তি চোখের সামনে কীসের মতো ফুটে ওঠে?
[ক] রেখা
[খ] মূর্তি
☑️ ছবি
[ঘ] ছায়াছবি

জীবন ও বৃক্ষ গল্পের বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির গাইড HSC Bangla 1st Paper Jibon O Brikkho MCQ Question and Answer

৫৯. বৃক্ষ কীভাবে পরিপূর্ণ হয়ে ওঠে?
[ক] বর্ষে বর্ষে
☑️ ফুলে-ফলে
[গ] কাণ্ড-শাখায়
[ঘ] পত্রপল্লবে

৬০. সৃজনশীল মানুষের কীসে পার্থক্য দেখা যায় না?
☑️ প্রাপ্তি ও দানে
[খ] চিন্তায় ও কর্মে
[গ] প্রাপ্তি ও অপ্রাপ্তিতে
[ঘ] নিজ ও পর ভেদে আচরণে

৬১. বৃক্ষের পানে তাকিয়ে রবীন্দ্রনাথ কী উপলব্ধি করেছেন?
[ক] বিকাশ
☑️ অন্তরের সৃষ্টিধর্ম
[গ] মনুষ্যত্বের বেদনা
[ঘ] ফললাভের বেদনা

৬২. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর গদ্যে কী স্পষ্ট করে বলেন নি?
[ক] মনুষ্যত্বের বেদনার কথা
[খ] জীবের প্রাণধর্মের কথা
☑️ বৃক্ষের পানে তাকিয়ে অন্তরের সৃষ্টিধর্মের কথা
[ঘ] নদীর গতিতে মনুষ্যত্বের দুঃখের উপলব্ধি

৬৩. কীভাবে বৃক্ষ আমাদের সার্থকতার গান গেয়ে শোনায়?
[ক] অব্যক্ত ভাষায়
[খ] ইশারা ইঙ্গিতের ভাষায়
[গ] সৌন্দর্যের ভাষায়
☑️ নীরব ভাষায়

৬৪. অনুভূতির কান দিয়ে কোন গান শুনতে হবে?
☑️ নীরব ভাষায় বৃক্ষের সার্থকতার গান
[খ] নদীর সাগরে পতিত হওয়ার গান
[গ] মানুষের প্রাণধর্মের গান
[ঘ] শান্তি, সাম্য ও সেবার গান

৬৫. জীবনের মানে কী?
[ক] বেঁচে থাকা
☑️ বৃদ্ধি
[গ] স্বাধীনতা
[ঘ] প্রতিপত্তি

৬৬. মানুষের মর্যাদা কীসে?
[ক] সৃষ্টির সেরা জীব হিসেবে
[খ] পারিবারিক অবস্থানে
[গ] সামাজিক পদমর্যাদায়
☑️ মানুষের বৃদ্ধির ওপরে তার হাত থাকায়

৬৭. মানুষকে কী সৃষ্টি করে নিতে হয়?
☑️ আত্মা
[খ] মন
[গ] স্বপ্ন
[ঘ] বাস্তবতা

৬৮. সুখ-দুঃখ-বেদনা উপলব্ধির ফলে অন্তরের কী হয়?
[ক] উদাসীনতা
☑️ পরিপক্বতা
[গ] নির্লিপ্ততা
[ঘ] সংকীর্ণতা

৬৯. আত্মারূপ ফল কার উপভোগ্য?
[ক] ব্যক্তির
[খ] সমাজের
[গ] দেবতার
☑️ স্রষ্টার

৭০. আত্মাকে কীভাবে গড়ে তুলতে হবে?
[ক] ধর্মীয় শিক্ষায়
[খ] বস্তুগত শিক্ষায়
[গ] ধর্মনিরপেক্ষতা শিক্ষায়
☑️ মধুর ও পুষ্ট করে

৭১. আত্মাকে মধুর ও পুষ্ট করে গড়ে তুলতে হবে কেন?
☑️ স্রষ্টার উপভোগের উপযুক্ত হতে
[খ] সৃষ্টির শ্রেষ্ঠ জীব হতে
[গ] মানবিক বিকাশ পূর্ণ করতে
[ঘ] মনুষ্যত্বের বেদনা উপলব্ধি করতে

৭২. কী কখনো শিক্ষার প্রধান বিষয়বস্তু হতে পারে না?
[ক] কলা
☑️ বিজ্ঞান
[গ] চিত্রকলা
[ঘ] সংগীত

৭৩. কী দ্বারা জীবনবোধ ও মূল্যবোধে অন্তর পরিপূর্ণ হয়?
[ক] আত্মজিজ্ঞাসায়
[খ] ধর্মচর্চায়
[গ] সংগীত চর্চায়
☑️ সাহিত্য-শিল্পকলায়

৭৪. কার জীবন বৃদ্ধি বা বিকাশের চমৎকার নিদর্শন?
[ক] মানুষের
[খ] জীবের
☑️ বৃক্ষের
[ঘ] নদীর

৭৫. বৃক্ষের পানে তাকিয়ে আমরা কী হতে পারি?
[ক] বৃক্ষপ্রেমিক
☑️ লাভবান
[গ] তপোবন প্রেমিক
[ঘ] কবি

৭৬. বৃক্ষ কীভাবে জীবনের গুরুভার বহন করে?
[ক] ফল দ্বারা
[খ] ফুল দ্বারা
[গ] বৃষ্টিকে প্রভাবিত করে
☑️ অতিশান্ত ও সহিষ্ণুতায়

৭৭. ‘গায়ের জোরে কাজ হাসিলে তৎপর থাকে যে’ তাকে কী বলে?
[ক] স্থূলবুদ্ধি
☑️ জবরদস্তিপ্রিয়
[গ] বিকৃতবুদ্ধি
[ঘ] চর্মচক্ষু

৭৮. জীবনে অনুকরণের উপযুক্ত মহৎ ও শ্রেষ্ঠ দিকগুলোকে কী বলে?
[ক] মনুষ্যত্ব
[খ] সাধনা
[গ] বস্তুজিজ্ঞাসা
☑️ জীবনাদর্শ

৭৯. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে প্রাবন্ধিক কী হিসেবে উল্লেখ করেছেন?
[ক] প্রকৃতিপ্রেমী
☑️ বৃক্ষপ্রেমী
[গ] দার্শনিক
[ঘ] ঋষি

৮০. মুনি-ঋষিরা তপস্যা করেন এমন বন-
☑️ তপোবন
[খ] আশ্রম
[গ] সাধনাকেন্দ্র
[ঘ] ঋষি আশ্রম

৮১. নির্মাণ সৃষ্টিতে তৎপর যে-
☑️ সৃজনশীল
[খ] সুশ্রী
[গ] সৃষ্টিকর্মী
[ঘ] নতুনত্বের প্রতীক

৮২. ‘আত্মিক’ শব্দের অর্থ কী?
[ক] সুপরিণতিজাত
☑️ মনোজাগতিক
[গ] বিনয়
[ঘ] সংবেদনশীলতা

৮৩. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ কোন ধরনের রচনা?
[ক] ছোটগল্প
☑️ প্রবন্ধ
[গ] উপন্যাস
[ঘ] নাটক

৮৪. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধে প্রাবন্ধিক মানুষের কোন দিকটির প্রতি গুরুত্ব দিয়েছেন?
[ক] সাধনা
☑️ বিকাশ সাধন
[গ] কর্মমুখিতা
[ঘ] সৌন্দর্যপ্রীতি

গ শব্দার্থ ও টীকা: (বোর্ড বই থেকে)

৮৫. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধে ‘বুলি’ শব্দটি কী অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে?
[ক] বাণী
[খ] ভাষা
☑️ গৎ বাঁধা কথা
[ঘ] মর্যাদাপূর্ণ বাণী

৮৬. ‘স্থূলবুদ্ধি’ শব্দের অর্থ কী?
☑️ সূক্ষ বিচারবুদ্ধিহীন
[খ] বুদ্ধিহীন
[গ] অভিজ্ঞতাহীন
[ঘ] কর্মহীন

৮৭. ‘গায়ের জোরে কাজ হাসিলে তৎপর থাকে যে’ তাকে কী বলে?
[ক] স্থুলবুদ্ধি
☑️ জবরদস্তিপ্রিয়
[গ] বিকৃতবুদ্ধি
[ঘ] চর্মচক্ষু

৮৮. ‘নিশান’ শব্দটি কোন ভাষার শব্দজাত?
[ক] বাংলা
[খ] হিন্দি
[গ] উর্দু
☑️ ফারসি

৮৯. জীবনে অনুকরণের উপযুক্ত মহৎ ও শ্রেষ্ঠ দিকগুলোকে কী বলে?
[ক] মনুষ্যত্ব
[খ] সাধনা
[গ] বস্তুজিজ্ঞাসা
☑️ জীবনাদর্শ

৯০. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে প্রাবন্ধিক কী হিসেবে উল্লেখ করেছেন?
[ক] প্রকৃতিপ্রেমী
☑️ বৃক্ষপ্রেমী
[গ] দার্শনিক
[ঘ] ঋষি

৯১. মুনি-ঋষিরা তপস্যা করেন এমন বন-
☑️ তপোবন
[খ] ম্যানগ্রোভ বন
[গ] সাধনাকেন্দ্র
[ঘ] শালবন

৯২. নির্মাণ সৃষ্টিতে তৎপর যে-
☑️ সৃজনশীল
[খ] সৃষ্টি
[গ] সৃষ্টিকর্মী
[ঘ] নতুনত্বের প্রতীক

৯৩. ‘আত্মিক’ শব্দের অর্থ কী?
[ক] সুপরিণতিজাত
☑️ মনোজাগতিক
[গ] বিনয়
[ঘ] সংবেদনশীলতা

পাঠ পরিচিতি: (বোর্ড বই থেকে)

৯৪. কে প্রশান্তির ইঙ্গিত বহন করে?
[ক] মানুষ
[খ] নদী
☑️ বৃক্ষ
[ঘ] সাধনা

৯৫. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ কোন গ্রন্থ থেকে সংকলিত?
[ক] সভ্যতা
[খ] সুখ
☑️ সংস্কৃতি কথা
[ঘ] রচনাবলি

৯৬. ‘সংস্কৃতি কথা’ কোন ধরনের সাহিত্যকর্ম?
[ক] গল্পগ্রন্থ
[খ] আত্মজীবনী
☑️ প্রবন্ধ সাহিত্য
[ঘ] অনুবাদ কর্ম

৯৭. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ কোন ধরনের রচনা?
[ক] গল্প
☑️ প্রবন্ধ
[গ] উপন্যাস
[ঘ] কাব্য

৯৮. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধটির রচয়িতা কে?
☑️ মোতাহের হোসেন চৌধুরী
[খ] প্রমথ চৌধুরী
[গ] রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
[ঘ] কাজী নজরুল ইসলাম

৯৯. ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধে প্রাবন্ধিক মানুষের কোন দিকটির প্রতি গুরুত্ব দিয়েছেন?
[ক] দেশপ্রেম
☑️ বিকাশ সাধন
[গ] কর্মমুখিতা
[ঘ] সৌন্দর্যপ্রীতি

১০০. মোতাহের হোসেন চৌধুরী কোন ধরনের লেখক?
[ক] প্রতিবাদী
[খ] মার্কসবাদী
[গ] দার্শনিক
☑️ মননশীল ও চিন্তাশীল

১০১. কোন আন্দোলনের কাণ্ডারি হিসেবে মোতাহের হোসেন চৌধুরী স্মরণীয় হয়ে আছেন?
[ক] ইংরেজ আন্দোলন
[খ] স্বাধীনতা আন্দোলন
☑️ বুদ্ধির মুক্তি আন্দোলন
[ঘ] বঙ্গভঙ্গ আন্দোলন

১০২. বাঙালি মুসলমান সমাজের অগ্রগতির আন্দোলন কোনটি?
[ক] নীল বিদ্রোহ
[খ] স্বাধীনতা আন্দোলন
☑️ বুদ্ধির মুক্তি আন্দোলন
[ঘ] ভাষা আন্দোলন

১০৩. মুক্তবুদ্ধি চেতনা ও মানবপ্রেমের আদর্শের অনুসারী ছিলেন কোন লেখক?
[ক] কাজী নজরুল ইসলাম
☑️ মোতাহের হোসেন চৌধুরী
[গ] সৈয়দ আলী আহসান
[ঘ] মীর মশাররফ হোসেন

১০৪. মননশীল ও চিন্তা-উদ্দীপক গদ্যের রচয়িতা ছিলেন কে?
[ক] শামসুর রাহমান
[খ] বেগম সুফিয়া কামাল
[গ] সুকান্ত ভট্টাচার্য
☑️ মোতাহের হোসেন চৌধুরী

১০৫. মোতাহের হোসেন চৌধুরীর প্রথম গ্রন্থের নাম কী?
[ক] সভ্যতা
☑️ সংস্কৃতি কথা
[গ] সাহিত্যের খেলা
[ঘ] জীবন ও বৃক্ষ

১০৬. ‘Civilization’ গ্রন্থ অনুসারে রচিত সাহিত্যকর্ম কোনটি?
[ক] জীবন ও বৃক্ষ
[খ] সুখ
☑️ সভ্যতা
[ঘ] সংস্কৃতি কথা

১০৭. মোতাহের হোসেন কার সহযোগী ছিলেন?
[ক] কাজী নজরুল ইসলাম
[খ] মীর মশাররফ হোসেন
☑️ আবুল ফজল
[ঘ] সৈয়দ আলী আহসান

বহুপদী সমাপ্তিসূচক প্রশ্ন ও উত্তর:

১০৮. মোতাহের হোসেন চৌধুরী, কাজী মোতাহার হোসেন, আবুল ফজল- এই তিনজনের মধ্যে যেদিক থেকে সাদৃশ্য রয়েছে-
i. তিনজনই ‘বুদ্ধির মুক্তি আন্দোলন’-এর সহযোগী
ii. তিনজনই অধ্যাপক
iii. তিনজনই অনুবাদ সাহিত্যকর্মের লেখক

নিচের কোনটি সঠিক?
☑️ i ও ii
[খ] i ও iii
[গ] ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১০৯. যে ধরনের মানুষে সংসার পরিপূর্ণ-
i. স্বল্পপ্রাণ
ii. স্থূলবুদ্ধি
iii. জবরদস্তিপ্রিয়

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
[খ] i ও iii
[গ] ii ও iii
☑️ i, ii ও iii

১১০. মোতাহের হোসেন চৌধুরী সম্পর্কে প্রযোজ্য-
i. মনস্বী
ii. চিন্তাশীল লেখক
iii. বুদ্ধির মুক্তি আন্দোলনের অন্যতম কাণ্ডারি

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
[খ] i ও iii
[গ] ii ও iii
☑️ i, ii ও iii

১১১. মোতাহের হোসেন চৌধুরী আদর্শ অনুসরণ করতেন-
i. সাহিত্যের অঙ্গনে
ii. পেশার ক্ষেত্রে
iii. বাস্তব জীবনে

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
☑️ i ও iii
[গ] ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১১২. স্বল্পপ্রাণ, স্থূলবুদ্ধি ও জবরদস্তিপ্রিয় মানুষের কাজ-
i. নিজের জীবনকে সার্থক করে তোলা
ii. নিজের জীবনকে সুন্দর করে তোলা নয়
iii. অপরের সার্থকতার পথে অন্তরায় সৃষ্টি করা

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
[খ] i ও iii
☑️ ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১১৩. প্রেম ও সৌন্দর্যের স্পর্শ লাভ না করায় স্থূলবুদ্ধি মানুষেরা-
i. নিষ্ঠুর
ii. বিকৃতবুদ্ধি
iii. প্রেমহীন

নিচের কোনটি সঠিক?
☑️ i ও ii
[খ] i ও iii
[গ] i ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১১৪. জবরদস্তিপ্রিয় মানুষের মানবপ্রেমের কথাকে মনে হয়-
i. আন্তরিকতাশূন্য
ii. নির্মম পরিহাস
iii. উপলব্ধিহীন বুলি

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
☑️ i ও iii
[গ] ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১১৫. স্বল্পপ্রাণ, স্থূলবুদ্ধি ও জবরদস্তিপ্রিয় মানুষের বিপরীতে হলো-
i. বড় মানুষ
ii. সূক্ষবুদ্ধি উদার হৃদয়
iii. গভীরচিত্ত ব্যক্তি

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
[খ] i ও iii
[গ] i, ii ও iii
☑️ i, ii ও iii

১১৬. গভীরচিত্ত ব্যক্তির কাছে বড় হয়ে ওঠে-
i. জীবনের বিকাশ
ii. মনুষ্যত্বের বেদনা
iii. কেবল টিকে থাকা নয়

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
☑️ i ও iii
[গ] ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১১৭. বৃক্ষকে-
i. ফুল ফোটাতে হয়
ii. ছায়াদান করতে হয়
iii. ফল ধরাতে হয়

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
☑️ i ও iii
[গ] ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১১৮. বৃক্ষ তাই প্রতীক, জীবনের-
i. প্রয়োজনীয়তার
ii. সজীবতার
iii. সার্থকতার

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i
[খ] ii
[গ] iii
☑️ i, ii ও iii

১১৯. চর্মচক্ষুকে বড় না করে আমাদেরকে বড় করতে হবে-
i. কল্পনাশক্তিকে
ii. মনের পরিধিকে
iii. অনুভূতির চক্ষুকে

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
☑️ i ও iii
[গ] ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১২০. বৃদ্ধির ওপর তাদের নিজেদের হাত নেই-
i. মানুষ
ii. তরুলতা
iii. জীবজন্তুর

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
☑️ ii ও iii
[গ] i ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১২১. অন্তরের পরিপক্বতা আসে-
i. সুখ উপলব্ধির ফলে
ii. দুঃখ উপলব্ধির ফলে
iii. বেদনা উপলব্ধির ফলে

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
[খ] ii ও iii
[গ] ii ও iii
☑️ i, ii ও iii

১২২. আত্মার পরিপুষ্টি ও মাধুর্য সম্পাদন সম্ভব-
i. বিচিত্র অভিজ্ঞতা দ্বারা
ii. গভীর প্রেম দ্বারা
iii. গভীর অনুভূতির দ্বারা

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
[খ] ii ও iii
[গ] i ও iii
☑️ i, ii ও iii

১২৩. বিজ্ঞান শিক্ষার প্রধান বিষয়বস্তু না হওয়ার কারণ হলো এতে-
i. আত্মার উন্নতি হয় না
ii. জীবনবোধ ও মূল্যবোধে অন্তর পরিপূর্ণ হয় না
iii. মানুষ যান্ত্রিক হয়ে ওঠে

নিচের কোনটি সঠিক?
☑️ i ও ii
[খ] ii ও iii
[গ] i ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১২৪. সূক্ষবুদ্ধি বলতে আমরা বুঝি-
i. কূটবুদ্ধি
ii. তীক্ষ্ণবুদ্ধি বা জ্ঞানসম্পন্ন
iii. সূক্ষ বিচার-বিবেচনা আছে এমন জ্ঞান

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
[খ] i ও iii
☑️ ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১২৫. অরণ্য ও বৃক্ষপ্রেমিক রবীন্দ্রনাথকে তুলনা করা হয়েছে-
i. তপোবন প্রেমিকের সাথে
ii. প্রাচীন ভারতীয় ঋষিদের সাথে
iii. কাব্যপ্রেমীর সাথে

নিচের কোনটি সঠিক?
☑️ i ও ii
[খ] i ও iii
[গ] ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১২৬. লেখক মানবজীবনকে বৃক্ষের সঙ্গে তুলনা করেছেন, যে জীবন-
i. পরার্থে আত্মনিবেদিত
ii. সুকৃতিময় সার্থক
iii. বিবেকবান মানবজীবন

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i
[খ] ii
[গ] iii
☑️ i, ii ও iii

অভিন্ন তথ্যভিত্তিক বহুনির্বাচনি প্রশ্ন ও উত্তর:
উদ্দীপকটি পড় এবং ১২৭ ও ১২৯ নং প্রশ্নের উত্তর দাও:
জার্মান জাতির শ্রেষ্ঠত্বের বড়াইকে পুঁজি করে হিটলার দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূচনা করেন। জার্মানরাই পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ জাতি। জার্মান ব্যতীত পৃথিবীর তাবৎ জাতির প্রতি অবজ্ঞা ও ঘৃণার এক তীব্র জাতিবিদ্বেষে হিটলারের জার্মান বাহিনী একের পর এক প্রতিবেশী দেশ দখল করে নেয়। তাদের গোয়েবলসীয় বিশ্বনেতৃত্বের গুণগান প্রচারে বিশ্বের বিবেকবান মানুষমাত্রই শঙ্কিত হয়ে উঠেছিল।

১২৭. উদ্দীপকের উল্লিখিত জার্মান জাতির সাথে ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধের যে শ্রেণির মানুষের সাদৃশ্য রয়েছে-
i. স্বল্পপ্রাণ
ii. স্থূলবুদ্ধি
iii. জবরদস্তিপ্রিয়

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i
[খ] ii
[গ] iii
☑️ i, ii ও iii

১২৮. উদ্দীপকের জাত্যাভিমানের সাথে পাঠ্যপুস্তকের কোন শ্রেণির অহংকারের মিল রয়েছে?
[ক] ব্যক্তিগত
[খ] পারিবারিক
[গ] গোষ্ঠীগত
☑️ জাতিগত

১২৯. পাঠ্যপুস্তক অনুসারে কাকে উদ্দীপকের হিটলারের একমাত্র দেবতা জ্ঞান করা যায়?
[ক] জিউস
☑️ অহংকার
[গ] স্বাদেশিকতা
[ঘ] জুপিটার

উদ্দীপকটি পড় এবং ১৩০-১৩২ নং প্রশ্নের উত্তর দাও:
সৃষ্ট জীবের মধ্যে মানুষের শ্রেষ্ঠত্ব হলো তার আত্মিক বিকাশে। অন্য জীবজন্তু যেভাবে বাড়ে মানুষও সেভাবেই বাড়ে। কিন্তু মানুষের আত্মিক বিকাশ তার প্রচেষ্টানির্ভর। এ বিকাশ অন্য কোনো জীবজন্তুর ঘটে না। সুখ-দুঃখ-বেদনার উপলব্ধি এবং বিচিত্র অভিজ্ঞতা, প্রচুর প্রেম দ্বারা মানুষের আত্মার পরিপুষ্টি সাধন হয়। এমনি পরিপক্ব আত্মারূপ ফল স্রষ্টার উপভোগ্য।

১৩০. উদ্দীপকটি ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধের উল্লিখিত মানুষের যে বৃদ্ধিকে নির্দেশ করে-
i. দৈহিক বৃদ্ধি
ii. আত্মিক বৃদ্ধি
iii. মানবিক বৃদ্ধি

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i
☑️ i ও ii
[গ] ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১৩১. “এ বিকাশ অন্য কোনো জীবজন্তুর ঘটে না।” ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধের যে বাক্যে উদ্দীপকের বাক্যটির প্রতিফলন দেখা যায়-
i. তরুলতা ও জীবজন্তুর বৃদ্ধির ওপর তাদের নিজেদের কোনো হাত নেই
ii. প্রকৃতির যে ধর্ম, মানুষের সে ধর্ম
iii. মানুষের বৃদ্ধির ওপরে তার নিজের হাত রয়েছে

নিচের কোনটি সঠিক?
[ক] i ও ii
☑️ i ও iii
[গ] ii ও iii
[ঘ] i, ii ও iii

১৩২. স্রষ্টার উপভোগ্য আত্মারূপ ফল কীভাবে সৃষ্টি হয়?
[ক] অভিজ্ঞতায়
[খ] দৈহিক বৃদ্ধির দ্বারা
[গ] আত্মিক বৃদ্ধির দ্বারা
☑️ পরিপক্বতায়

⚛ রিভিশন অংশ (Revision)
আলোচ্য অংশে জ্ঞানভাণ্ডারকে সমৃদ্ধ করার জন্য বাড়ির কাজ, গুরুত্বপূর্ণ তথ্যকণিকা, জ্ঞানমূলক এবং অনুধাবনমূলক আরও কিছু প্রশ্ন ও উত্তর উল্লেখ করা হয়েছে। এ অংশটি অনুশীলনের মাধ্যমে পরীক্ষার চূড়ান্ত প্রস্তুতি ও Revision সম্পূর্ণ হয়ে যাবে।

⚛ বাড়ির কাজ
▶ ‘লেখক পরিচিতি’ সম্পর্কে জানবে ।
▶ বৃক্ষের ব্যাপ্তি চোখের সামনে ছবি হয়ে ফুটে ওঠে কেন ? ব্যাখ্যা কর ।
▶ প্রাবন্ধিক বার বার বৃক্ষের দিকে তাকাতে বলেছেন কেন ? তোমার শিক্ষকের সহায়তায় তা জানবে ।
▶ “ডালিম গাছের ফুল-ফল পাখির জন্য মানুষের, সেবা বা খাদ্যের জন্য নয়”- । উক্তিটি ব্যাখ্যা কর ।

⚛ গুরুত্বপূর্ণ তথ্যকণিকা
▶ সমাজের কাজ মানুষকে বিকশিত করা, জাগিয়ে তোলা।
▶ বৃক্ষকে আদর্শ হিসাবে ধারণে জীবনের সার্থকতার সৌন্দর্য বুঝতে পারবে। ফুল দেখানো ও ফলদানের সাথেই বৃক্ষের অপর সার্থকতা রয়েছে।
▶ নদীকে মনুষ্যত্বের প্রতীক বলা যেতে পারে না, কারণ তাতে জীবনের কোনো স্পষ্টরূপ ধরা দেয় না, নদী নিয়ত বহমান কিন্তু বৃক্ষ স্থির, বৃক্ষের সার্থকতার ছবি স্পষ্ট বোঝা যায়। এজন্য বৃক্ষকেই জীবনের প্রতীক হিসেবে ধরা যায়।
▶ বৃক্ষ নীরব ভাষায় আমাদেরকে সার্থকতার গান শোনায়, অনুভূতির কান দিয়ে এ গান শুনতে হবে।
▶ আত্মাকে সৃষ্টি করে নিতে হয়, সুখ-দুঃখ উপলব্ধির ফলেই আত্মার সৃষ্টি হয়।
▶ মোতাহের হোসেন চৌধুরী রচিত ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধটি তার ‘সংস্কৃতি কথা’ প্রবন্ধ থেকে সংকলিত হয়েছে।
▶ ‘জীবন ও বৃক্ষ’ প্রবন্ধে বৃক্ষকে জীবনের আদর্শ হিসেবে উপস্থাপনের মাধ্যমে মূলত মানুষকে পরোপকারী, মহৎ হওয়ার অনুপ্রেরণা যোগানো হয়েছে।
▶ এ প্রসঙ্গে মানব আত্মার পূর্ণতা ও অপূর্ণতার বিষয়টি সার্থকভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।
Post a Comment (0)
Previous Post Next Post